সহিংসতা আরো হতে পারে

অভিশংসনের প্রস্তাব ‘হাস্যকর’

অনলাইন ডেস্ক, আউটলুকবাংলা ডটকম

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল ভবন কট্টর সমর্থকদের সহিংস হামলার ঘটনায় কোনো দায় নিতে অস্বীকৃতি জানিয়ে ট্রাম্প বলেছেন, সহিংসতা উস্কে দেওয়ার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে ডেমোক্রেটরা কংগ্রেসে যে অভিশংসনের প্রস্তাব ‘একেবারেই হাস্যকর’।

এর ফলে জনগণের মধ্যে ‘প্রচণ্ড ক্ষোভ’ তৈরি হচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি অভিশংসন করা হলে আরও সহিংসতার ইঙ্গিত দিয়েছেন।

মঙ্গলবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গ এ তথ্য জানিয়েছে বলেছে, ট্রাম্প দ্বিতীয়বারের মতো হাউসে তার অভিশংসনের প্রস্তাব না তুলতে সতর্ক করেছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল ভবনে সহিংস হামলার আগে ট্রাম্প যে বক্তব্য দিয়েছিলেন তা ‘পুরোপুরি ঠিক আছে’ বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

গতকাল টেক্সাসে রওনা হওয়ার আগে ট্রাম্প গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘মানুষ মনে করছে, আমি যা বলেছিলাম তা পুরোপুরি ঠিক আছে এবং আপনি যদি লক্ষ্য করেন, অন্যরা, উচ্চ পর্যায়ের রাজনীতিবিদরা গ্রীষ্মের দাঙ্গার সময়, পোর্টল্যান্ড ও সিয়াটল এবং অন্যান্য বিভিন্ন জায়গায় যে ভয়াবহ দাঙ্গা হয়েছিল সেসময় তারা যা বলেছিলেন সেটাই সমস্যার কারণ ছিল।’

ক্যাপিটলে হামলার পর সহিংসতা ঠেকাতে গত সপ্তাহে ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিয়েছে টুইটার। এরপর থেকেই তিনি কিছুটা নিশ্চুপ।

গতকাল হেলিকপ্টারে ওঠার আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের প্রতি নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেছেন, ‘আমাকে নিষিদ্ধ করে বিগ টেক একটি মারাত্মক ভুল করেছে।’

গণমাধ্যমে আরও বলা হয়েছে, হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের তিনি বলেছেন, ‘তারা সত্যিই একটি ভয়ংকর কাজ করছেন। আমরা কোনো সহিংসতা চাই না। কখনোই সহিংসতা চাই না।’

ট্রাম্পের উস্কানিমূলক বক্তব্যের কারণেই গত সপ্তাহে হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করেছেন ডেমোক্রেটরা। বেশ কয়েকজন রিপাবলিকান নেতাও এতে একমত হয়েছেন।

গত ৬ জানুয়ারি কংগ্রেসে জো বাইডেনের জয়ের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি অনুষ্ঠান শুরু হলে ট্রাম্পের একদল সমর্থক ক্যাপিটল ভবনে হামলা চালায়। সে ঘটনায় দুই ক্যাপিটল পুলিশ কর্মকর্তাসহ পাঁচ জন নিহত হয়েছেন।

সহিংসতায় আগে হোয়াইট হাউসের কাছে সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্যে দিয়েছিলেন ট্রাম্প। ‘সেভ আমেরিকা মার্চ’ নামের ওই র‌্যালিতে ট্রাম্প বলেছিলেন যে তিনি কখনোই পরাজয় মেনে নেবেন না।

সমর্থকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেছিলেন, ‘আমরা ক্যাপিটাল হিলে যাব। আমাদের সাহসী কংগ্রেসম্যান ও ওম্যানদের উৎসাহ দিব। তবে, আমরা তাদের মধ্যে কয়েকজনকে খুব বেশি উৎসাহ দিব না। কারণ আপনি কখনোই আমাদের দেশকে দূর্বলতা দিয়ে ফিরিয়ে নিতে পারবেন না। এজন্য আপনাকে শক্তি দেখাতে হবে ও শক্তিশালী হতে হবে।’

যুক্তরাষ্ট্রের হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভ (প্রতিনিধি পরিষদ) ট্রাম্পকে ক্ষমতাচ্যুত করতে ২৫তম সংশোধনী প্রয়োগের প্রস্তাব পাশ করেছে।

সিএনএন জানিয়েছে, ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ২৫তম সংশোধনী প্রয়োগ করে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ক্ষমতাচ্যুত করার প্রস্তাব প্রত্যাখান করার পর প্রতিনিধি পরিষদ গতকাল মঙ্গলবার রাতে এই প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেয়।

আরো