যে ৬৬ কোম্পানির ফ্লোর প্রাইসের নির্দেশনা প্রত্যাহার হলো

স্টাফ রিপোর্টার, আউটলুকবাংলা ডটকম

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৬৬টি কোম্পানি থেকে ফ্লোর প্রাইসের (পতনের সর্বনিম্ন সীমা) নির্দেশনা প্রত্যাহার করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। যা আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে কার্যকর হবে।

বুধবার (০৭ এপ্রিল) কমিশনের ৭৬৯তম নিয়মিত সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সূত্র জানায়, বিনিয়োগকারীদের স্বার্থ রক্ষার্থে ও পুঁজিবাজারের উন্নয়নে প্রাথমিকভাবে ৬৬টি কোম্পানি থেকে ফ্লোর প্রাইসের নির্দেশনা প্রত্যাহার করা হল। যা গতবছরের ১৯ মার্চ করোনা মহামারির কবলে পতনরোধে দেওয়া হয়েছিল।

জানা গেছে, বর্তমানে ১১০টি কোম্পানি সিকিউরিটিজ ফ্লোর প্রাইসে আটকে আছে। এরমধ্যে ৬৬টি থেকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হল। বাকিগুলোর ক্ষেত্রে পরবর্তীতে সম্ভবত ২ ধাপে ফ্লোর প্রাইসের নির্দেশনা তুলে নেওয়া হবে।

ফ্লোর প্রাইসের নির্দেশনা প্রত্যাহার করে নেওয়া কোম্পানিগুলো হচ্ছে-

পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্স সার্ভিস, আর এন স্পিনিং মিলস, বাংলাদেশ সার্ভিসেস, আইএফআইসি ইসলামী মিউচ্যুয়াল ফান্ড, জাহিন স্পিনিং, রিং সাইন টেক্সটাইল, অলেম্পিক এ্যাকসেসরিস, ডিবিএইচ ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড, ফনিক্স ফিন্যান্স ফাস্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড, নূরানী ডাইং এবং সুইটার, রিজেন্ট টেক্সটাইল মিলস, এসইএমএল এফবিএলএসএল গ্রোথ ফান্ড, ইভেন্সি টেক্সটাইল, প্যাসিফিক ডেনিম, মেট্রো স্পিনিং, কাট্টালী টেক্সটাইল, ফার ক্যামিকেল, দেশবন্ধু পলিমার, ইয়াকিন পলিমার, সাফকো স্পিনিং মিলস, ওয়েস্টান মেরিন শিপইয়ার্ড, সেন্টাল ফার্মাসিউটিক্যাল, বীচ হ্যাচারী, সীমটেক্স ইন্ডাস্ট্রি, শেফার্ড ইস্ডান্ট্রি, হামিদ ফেব্রিক্স, প্রাইম টেক্সটাইল স্পিনিং মিলস, সায়হাম কটন, বাংলাদেম বিল্ডিং সিস্টেমস, গোল্ডেন হারভেস্ট, এএফসি এ্যাগ্রো, খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, বেঙ্গল ওয়েন্ডসন, এমএল ডাইং, প্যারামাউন্ড টেক্সটাইল, সিনো বাংলা ইন্ডাস্ট্রি, দুলামিয়া কটন, নাহি এ্যালোমিনিয়াম, খুলনা পাওয়ার কোম্পানি, উসমানিয়া গ্লাস শিট, উত্তরা ফিন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, ফারইস্ট ইসলামী লাইফ, স্ট্যান্ডান্ড ইন্স্যুরেন্স, ইউনিটক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট, ঢাকা ইলেক্টনিক্স সাপ্লাই কোম্পানি, নাভানা সিএনজি, গ্লোবাল হ্যাভি ক্যামিকেল, আলিফ ইন্ডাস্ট্রি, সোনারগাঁও টেক্সটাইল, সায়হাম টেক্সটাইল, রূপালী ব্যাংক, মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, কুইস সাউথ টেক্সটাইল মিলস, এ্যাডভান্ট ফার্মা, ফনিক্স ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, আইপিডিসি ফিন্যান্স, ভিএফএস থ্রেড ডাইং, ইস্কিউ নীট, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রি, শাসা ডেনিম, কপারটেক ইন্ডাস্ট্রি, আরগন ডেনিম, ইন্দো বাংলা ফার্মা ও সিলভো ফার্মা ও ওইমেক্স ইলেকট্রডিস লিমিটেড।


কমিশনের এই নির্দেশনার ফলে ফ্লোর প্রাইসে আটকে থাকা শেয়ারগুলোর লেনদেন শুরু হওয়ার সুযোগ তৈরী হয়েছে। যেগুলোর অধিকাংশই দীর্ঘদিন ধরে কেনাবেচা বন্ধ রয়েছে।