‘উপহার’ আর ‘দানের’ টিকায় করোনা মোকাবিলা সম্ভব নয়

স্টাফ রিপোর্টার, আউটলুকবাংলা ডটকম

টিকা কূটনীতিতে সরকার পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে মন্তব্য করে জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেছেন, বিভিন্ন দেশ থেকে ‘দান’ আর ‘উপহারের’ টিকা নিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ‘তৃপ্তির ঢেকুর’ তুললেও এ দিয়ে করোনা মহামারি মোকাবিলা সম্ভব হবে না।
আজ বুধবার দুপুরে জাতীয় পার্টির বনানীর কার্যালয়ে দলটির প্রয়াত চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদকে নিয়ে লেখা একটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে জি এম কাদের এ কথা বলেন।

সংসদে বিরোধীদলীয় উপনেতা জি এম কাদের বলেন, ‘বিশ্বের উন্নত ও অনুন্নত অনেক দেশ ইতিমধ্যেই রোডম্যাপ অনুযায়ী গণটিকা কর্মসূচি শুরু করেছে। ওই সব দেশের মানুষ জানে, কখন তাদের টিকাদান কর্মসূচি শেষ হবে। কিন্তু আমাদের দেশের কেউই জানে না, কখন আমরা গণটিকা শুরু করতে পারব। মানুষ করোনার টিকা পাওয়ার বিষয়ে সরকারের সুস্পষ্ট ঘোষণা জানতে চায়।’

টিকা নিয়ে সরকারের সমালোচনা করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ‘প্রতিদিন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে আশ্বাসের কথা বলা হচ্ছে, কিন্তু কোনো সাফল্য নেই। টিকা কূটনীতিতে বাংলাদেশ পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে। বিভিন্ন দেশ থেকে উপহারের ৫–১০ লাখ টিকা পেয়ে স্বস্তির ঢেকুর তুলছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। অথচ ১৮ কোটি মানুষের টিকা পাওয়ার বিষয়টি এখনো সম্পূর্ণ অনিশ্চিত। সরকারের ঘোষণায় বিশ্বাসযোগ্য কোনো তথ্য–উপাত্ত নেই। আমাদের মতো জনবহুল দেশে উপহার আর দানের সংগৃহীত অপর্যাপ্ত টিকা দিয়ে করোনার মতো মহামারি মোকাবিলা সম্ভব নয়।’

টিকা আমদানির জন্য বিকল্প উৎসের ব্যবস্থা না করাটা বড় ভুল ছিল বলে মন্তব্য করেন জি এম কাদের। তিনি বলেন, ‘অদূরদর্শিতার কারণে টিকা ক্রয়ে বিকল্প কোনো সোর্স রাখেনি সরকার। অথচ গত বছর বারবার সরকারকে টিকা ক্রয়ে বিকল্প সোর্স রাখতে পরামর্শ দিয়েছিলাম আমরা। বাজেটেও টিকার জন্য স্পষ্ট বরাদ্দ নেই। তবে বাজেট বক্তৃতায় কিছু দেশ ও সংস্থার কাছ থেকে ভ্যাকসিন সরবরাহ ও ভ্যাকসিন ক্রয়ের অর্থপ্রাপ্তির আশ্বাসের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। বিষয়টি এখনো সে পর্যায়ে আছে। এ অবস্থায় টিকা নিয়ে মানুষের মধ্যে হতাশা ছড়িয়ে পড়েছে।’

করোনা ভয়াবহ আকারে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেন জি এম কাদের। সরকারকে পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, গণহারে মৃত্যু ঠেকাতে অবিলম্বে চিকিৎসাব্যবস্থার উন্নয়নে ‘মেগা প্রকল্প’ গ্রহণ করতে হবে। একই সঙ্গে দেশীয় করোনা ভ্যাকসিনের টিকা উদ্ভাবনের যেকোনো উদ্যোগকে সহযোগিতা দিতে হবে।

জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেন, ‘সরকার মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে মেগা কমিশনের জন্য। ব্যবসায়িক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে করোনার টিকা আমদানি করা হয়েছে। লুটপাটের জন্যই দেশের মানুষ এখনো করোনার টিকা পাচ্ছে না।’

এর আগে জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রয়াত এরশাদের ওপর লেখা ‘সময়ের আয়নায় পল্লীবন্ধু’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন জি এম কাদের। বইয়ের প্রকাশক জাপার সাংসদ আহসান আদেলুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন দলের কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা ও সালমা ইসলাম। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মীর আবদুস সবুর, রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, দলীয় সাংসদ নাজমা আখতার, রানা মো. সোহেল, দলের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য শেরিফা কাদের প্রমুখ।

আরো