দান-সাদকা কি শুধু টাকা দিয়েই হয়?

নাহ! টাকা ছাড়াও হয়! রাসূলুল্লাহ সল্লাল্লাহু আ’লাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,

তোমার হাস্যোজ্জ্বল মুখ নিয়ে তোমার ভাইয়ের সামনে উপস্থিত হওয়া তোমার জন্য সাদকাস্বরূপ।

তোমার সৎকাজের আদেশ এবং তোমার অসৎকাজ হতে বিরত থাকার নির্দেশ তোমার জন্য সাদকাস্বরূপ।

“পথহারা লোককে পথের সন্ধান দেয়া তোমার জন্য সাদকাস্বরূপ।”

“স্বল্প দৃষ্টি সম্পন্ন লোককে সঠিক দৃষ্টি দেয়া তোমার জন্য সাদকাস্বরূপ (অর্থাৎ দৃষ্টিহীনকে পথ দেখানোও সাদকা)”

“পথ হতে পাথর, কাটা ও হাড় সরানো তোমার জন্য সাদকাস্বরূপ।”

“তোমার বালতি দিয়ে পানি তুলে তোমার ভাইয়ের বালতিতে ঢেলে দেয়া তোমার জন্য সাদকাস্বরূপ।”
(সূনান আত তিরমিজী , হাদিস নম্বর – ১৯৫৬)

“পানি পান করানোর চাইতে বেশি নেকি আর কোনো সদকাতে নেই।”
(বায়হাকী শু’আবুল ঈমান ৩১০৫)

আরো হলো,

>> একবার সুবহানাল্লাহ বলা একটি সদাকাহ।

>> একবার আলহামদুলিল্লাহ বলা একটি সাদাকাহ।

>> একবার আল্লাহু আকবার বলা একটি সদাকাহ।

>> একবার লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ বলা একটি সাদাকাহ।

>> নিজ হাতে লাগানো গাছের পাতা, ফল কোন প্রাণীতে খাওয়া একটি সাদাকাহ।

>> কাউকে একটি বোঝা তার বাহনে তুলে দিতে সহযোগিতা করা একটি সদাকাহ।

>> কাউকে একটি বোঝা তার বাহন থেকে নামাতে সহযোগিতা করা একটি সদাকাহ।

>> বিবাদমান দু’ব্যক্তির মাঝে সুবিচার করা একটি সাদাকাহ।

>> একটি উত্তম কথা একটি সাদাকাহ।

>> সালাতের জন্যে মসজিদের পথে প্রতিটি পদক্ষেপ একটি সদাকাহ।

(সহীহ মুসলিম-৭২০, ১০০৬,১০০৯,১৫৫৩, মুসনাদে আহমাদ-২১৪৭৩-৭৪)

মহান আল্লাহ সুবহানু ওয়া তা’য়ালার কত দয়া!

আমাদের নেকীর পাল্লা ভারী, জাহান্নাম থেকে বেঁচে থাকতে ও পরিবার, সমাজ সুন্দর করে গঠন করতে কত কত চমৎকার পন্থা আমাদের জানিয়ে দিয়েছেন।

শুধু টাকা-পয়সা দিয়ে নয় বরং আরও অনেক উপায়েও দান(সদাকা) করা যায় আর বেশী বেশী নেকীও হাসিল করা যায়!!

আল্লাহ তায়ালা আমাদের সহীহ উপায়ে দান-সদকা করার তৌফিক দিন, আমীন।