ইরানের বিরুদ্ধে ফের নিষেধাজ্ঞা জারি করলো যুক্তরাষ্ট্র

ইরানের বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এর অধীনে পড়েছে দেশটির ৬ ব্যাক্তি ও একটি প্রতিষ্ঠান। বৃহস্পতিবার এক ঘোষণায় মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয় এ নিষেধাজ্ঞার কথা জানায়।

এতে বলা হয়েছে, ২০২০ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করার অভিযোগে এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

ওই নির্বাচনের আগে তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন অভিযোগ করেছিল, ইরান, রাশিয়া ও চীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করার চেষ্টা করছে। যদিও সেসময় দেশগুলো এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছিল।

বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আবারো ইরানের সঙ্গে থাকা পরমাণু সমঝোতা চুক্তি কার্যকর করার লক্ষ্যে কূটনৈতিক উপায় অবলম্বনের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

জীবনে অনেক ন্যাপি পাল্টিয়েছি, বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী স্বীকার করলেন তিনি ছয় সন্তানের বাবা
বিষয়টি যখন আশার আলো দেখছে তার আগেই ইরানের বিরুদ্ধে এমন সময় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলো।

ইরানি গণমাধ্যমে বাইডেনের এমন আচরণকে তার দ্বিমুখী নীতি হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এতে বলা হচ্ছে, বাইডেন প্রশাসন একদিকে স্বীকার করছে যে, সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প ইরানের বিরুদ্ধে ‘সর্বোচ্চ চাপ’ প্রয়োগের যে নীতি গ্রহণ করেছে তা ব্যর্থ হয়েছে।

আবার অন্যদিকে এই প্রশাসন নিজেই ইরানের বিরুদ্ধে ট্রাম্প প্রশাসনের ব্যর্থ নীতি অনুসরণ করে একের পর এক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যাচ্ছে।