করোনা সংক্রমণ চিকিৎসায় পিল চালু করলো বৃটেন

করোনা ভাইরাসের পিল চালুর পরিকল্পনা করছে বৃটেনের জাতীয় স্বাস্থ্য বিভাগ এনএইচএস। একে ‘গেম চেঞ্জিং’ বলে আখ্যায়িত করা হচ্ছে।

বলা হচ্ছে, বড়দিনের আগেই অনুমোদন দেয়া হতে পারে মুখে সেবনের এই পিল। যারা করোনা ভাইরাসে পজেটিভ হয়েছেন তারা ঘরে বসে সেবন করতে পারবেন এই ওষুধ।

সানডে টেলিগ্রাফের মতে, বড়দিনের আগেই সবচেয়ে ঝুঁকিতে যেসব রোগী তাদেরকে মলনুপিরাভির, যা কখনো কখনো লাগেভরিও নামেও পরিচিত, তা সেবন করতে বলা হতে পারে।

এই ওষুধটির জাতীয় পাইলট প্রকল্প ঘোষণার প্রস্তুতি নিচ্ছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ। এই ওষুধটি গত মাসে সবার আগে অনুমোদন দিয়েছে বৃটেন।

স্কাই নিউজ তার রিপোর্টে বলছে, স্থানীয় পর্যায়ের স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের এই কর্মসূচি সম্পর্কে জানিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। তবে কখন এই কর্মসূচি শুরু হবে তা নিশ্চিত করে বলা হয়নি।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তিরা যাতে ভয়াবহভাবে অসুস্থ হয়ে না পড়েন এবং তাদের হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে না হয়, এমন লক্ষ্য নেয়া হয়েছে এই কর্মসূচিতে।

রিপোর্টে আরো বলা হয়েছে, যারা করোনা ভাইরাসে পজেটিভ হয়েছেন এবং যাদের ভয়াবহভাবে অসুস্থ হওয়ার জন্য কমপক্ষে একটি রিস্ক ফ্যাক্টর আছে, তারাই মলনুপিরাভির সেবন করতে পারবেন। এসব রিস্ক ফ্যাক্টরের মধ্যে আছে অতিশয় মোটা, ৬০ বছরের ওপরে বয়স, ডায়াবেটিস ও হার্টের সমস্যা। এনএইচএস এই পিল ক্লিনিক্যালি ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তিদের করোনা আক্রান্ত হওয়ার ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ব্যবহারের অনুমোদন দিতে যাচ্ছে।