ঈদের বাজারে ভিভো’র জনপ্রিয় ৮ স্মার্টফোন

সম্প্রতি গেল ঈদুল ফিতর। স্মার্টফোনের বাজার ছিল চাঙ্গা। ঈদ উপলক্ষ্যে গ্রাহকদের মাঝে সব সময়ই থাকে নতুন স্মার্টফোন কেনার আগ্রহ। এই চাহিদার কথা মাথায় রেখেই স্মার্টফোন কোম্পানিগুলোও দিয়ে থাকে বিভিন্ন অফারসহ নতুন নতুন স্মার্টফোন। ব্যতিক্রম ছিলোনা গ্লোবাল স্মার্টফোনের নির্মাতা ভিভো’ও ।

ঈদ বাজারে গ্রাহক পছন্দের তালিকায় ছিল ভিভো’র স্মার্টফোন। সব ধরণের ক্রেতাদের আগ্রহের বিষয় মাথায় রেখে আকর্ষণীয় দামে আর ফিচারে স্মার্টফোন বাজারে ব্যাপক আগ্রহের ছিলো ভিভো’র জনপ্রিয় ৮টি স্মার্টফোন। বহুজাতিক স্মার্টফোন নির্মাতা ভিভো তাদের স্মার্টফোন ডিজাইন এবং ক্যামেরার বৈচিত্রের জন্য বরাবরই বেশ জনপ্রিয়।ঈদ বাজারে ভিভো’র অধিক বিক্রি হওয়া ৮ স্মার্টফোন নিয়েই আলোচনা।

এক্স ৭০প্রো : ভিভো’র সবচেয়ে ব্যতিক্রমী ডিভাইস এক্স৭০প্রো। স্মার্টফোনটির মূল আকর্ষণ বিখ্যাত অপটিক্স নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কার্ল জেইসের লেন্স। ভিভো এক্স৭০প্রো’র সেলফি ক্যামেরাটি ৩২ মেগাপিক্সেলের। আর পেছনে রয়েছে ৫০, ১২, ১২ ও ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। স্মার্টফোনটি মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ১২০০-ভিভো চিপ দিয়ে পরিচালিত হয়। ৪৪৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারিটিকে সাপোর্ট দেয় ৪৪ ওয়াটের শক্তিশালী ফ্ল্যাশচার্জ প্রযুক্তি। ৭২,৯৯০ টাকার ভিভো এক্স৭০প্রো পাওয়া যাচ্ছে কসমিক ব্ল্যাক এবং অরোরা ডন কালারে ।

ভি২৩ ৫জি: ভিভো ভি২৩ ৫জি’তে আছে ৫০ মেগাপিক্সেলের অটোফোকাস পোর্ট্রেইট সেলফি ক্যামেরা ও ৮ মেগাপিক্সেলের সুপার ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা। স্মার্টফোনটিতে যুক্ত করা হয়েছে কালার চেঞ্জিং ফ্লোরাইট এন্টি গ্লেরিয়েন্ট ডিজাইন প্রযুক্তি। রিয়ারে রয়েছে ৬৪ মেগাপিক্সেলের জিডব্লিউ ১ সুপার সেন্সিং ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেলের সুপার ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা এবং ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো ক্যামেরা সিস্টেম। ৩৯,৯৯০ টাকা মূল্যের স্মার্টফোনটি সানশাইন গোল্ড এবং স্টারডাস্ট ব্ল্যাক কালার ।

ভি২৩ই: ভি২৩ ৫জি’র সেমি ফ্ল্যাগশিপ ভার্শন ভিভো ভি২৩ই। এই স্মার্টফোনেও ৫০ মেগাপিক্সেলের অটোফোকাস পোর্ট্রেইট সেলফি ক্যামেরা রয়েছে। এই সেলফি ক্যামেরায় একইসঙ্গে রয়েছে আই অটোফোকাস মোড এবং এআই এক্সট্রিম নাইট পোর্ট্রেইট । পেছনে আছে ৬৪ মেগাপিক্সেলের নাইট ক্যামেরা। আরো আছে ৮ মেগাপিক্সেলের সুপার ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা এবং ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো ক্যামেরা। ২.৫ডি ফ্ল্যাট ফ্রেম ডিজাইনের স্মার্টফোনটি পরিচালিত হয় ফানটাচ ওএস১২ দ্বারা। ভি২৩ই’তে আছে ৪৪ ওয়াটের ফ্ল্যাশচার্জ প্রযুক্তি। স্মার্টফোনটি’র ২৫,৯৯০ টাকা মূল্য, রয়েছে ২টি কালার, মুনলাইট শ্যাডো এবং সানশাইন কোস্ট।

ওয়াই৩৩এস: ভিভো’র সবচেয়ে নতুন স্মার্টফোন ওয়াই৩৩এস। সর্বাধুনিক ফটোগ্রাফি অভিজ্ঞতার জন্য স্মার্টফোনটির মেইন ক্যামেরা হিসেবে রয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। সেলফিতে রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেলের সুপার নাইট ক্যামেরা । ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারির সঙ্গে রয়েছে ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জ প্রযুক্তি। স্মার্টফোনটির মূল্য ২০,৯৯০ টাকা। পাওয়া যাচ্ছে মিরর ব্ল্যাক, স্টারি গোল্ড এবং মিডডে ড্রিম কালার ।

ওয়াই২১টি: স্মার্টফোনটিতে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ও ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জ আছে। স্মার্টফোনটি স্ন্যাপড্রাগন ৬৮০ প্রসেসর দ্বারা পরিচালিত। ১২৮ গিগাবাইটের বিশাল স্টোরেজও রয়েছে ওয়াই২১টি’তে। এই স্মার্টফোনটিতেও রয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরা। ৮ মেগাপিক্সেলের সুপার নাইট সেলফি ক্যামেরাও রয়েছে ওয়াই২১টি স্মার্টফোনে। ৮ মিলিমিটারের স্মার্টফোনটি পরিচালিত হয় ফানটাচ অপারেটিং সিস্টেম ১২ দিয়ে। ওয়াই২১টি স্মার্টফোনের বাজারমূল্য ১৭,৯৯০ টাকা; আর এই ডিভাইসটি মিলছে মিডনাইট ব্লু এবং পার্ল হোয়াইট কালারে ।

ওয়াই২১: ওয়াই২১ এর মূল্য ১৪,৯৯০ টাকা। মেটালিক ব্লু এবং ডায়ামন্ড গ্রে রঙের এই স্মার্টফোনে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ও ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জ প্রযুক্তি আছে। একইসঙ্গে ভিভো ওয়াই২১ স্মার্টফোনটিতে দ্রুত লক আনলক করতে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট প্রযুক্তিও যুক্ত করা হয়েছে। মেইন ক্যামেরা হিসেবে রিয়ারে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

ওয়াই১৫এস: ভিভো ওয়াই১৫এস স্মার্টফোনেও ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ও সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট প্রযুক্তি আছে। রিয়ারে ১৩ মেগাপিক্সেলের এআই ডুয়াল ক্যামেরা ও সেলফিতে ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। ১১,৯৯০ টাকা মূল্যের এই স্মার্টফোনটির মিসটিক ব্লু এবং ওয়েভ গ্রিন নামে চমৎকার ২টি কালার রয়েছে।

ওয়াই১এস: এই স্মার্টফোনটিতে দারুণ ভিডিও গেমিং অভিজ্ঞতার জন্য রয়েছে ৬ দশমিক ২২ ইঞ্চির হালো ফুলভিউ ডিসপ্লে ও ৪০৩০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। থ্রিডি কার্ভড বডি থাকার কারণে ওয়াই১এস হাতে খুব স্বাচ্ছন্দ্যেই ব্যবহার করা যায়। মাত্র ৮,৯৯০ টাকায় এই স্মার্টফোনটি মিলবে অলিভ ব্ল্যাক এবং অরোরা ব্লু এই ২টি চমৎকার কালারে।