অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটতে চালু হলো ‘রেল সেবা’ অ্যাপ

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার সুবিধা নিয়ে চালু হলো সেলফোন অ্যাপ ‘রেল সেবা’। আজ বুধবার রেল ভবনে অ্যাপটি উদ্বোধন করেন রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। বর্তমানে আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিটের ৫০ শতাংশ অনলাইনের মাধ্যমে বিক্রি করছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এখন থেকে নির্ধারিত ওয়েবসাইটের পাশাপাশি রেল সেবা অ্যাপ থেকেও ট্রেনের টিকিট কিনতে পারবেন যাত্রীরা।

বাংলাদেশ রেলওয়ের কম্পিউটারাইজ ও অনলাইন টিকিট ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে সহজ-সিনেসিস-ভিনসেন এর জয়েন্ট ভেঞ্চার। রেল সেবা অ্যাপটি এই জয়েন্ট ভেঞ্চার প্রতিষ্ঠানই তৈরি করেছে।

অ্যাপটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রেলপথমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, আমরা রেলওয়ের সেবাকে মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে চাই। মানুষ যেন ঘরে বসেই টিকিট কাটতে পারে সেই ব্যবস্থা আমরা করে দিয়েছি। প্রযুক্তিগত দিক থেকে রেলওয়েকে আরো এগিয়ে নেয়ার জন্য বিভিন্ন কার্যক্রম আমরা হাতে নিয়েছি। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আমরা আগামীতে রেলওয়েকে প্রযুক্তিগত দিক থেকে এগিয়ে নেয়ার জন্য বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করব।

নতুন অ্যাপটি সম্পর্কে সহজ-সিনেসিস-ভিনসেন জয়েন্ট ভেঞ্চারের কর্মকর্তারা জানান, অ্যাপটি বর্তমানে গুগল প্লে-স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে। টিকিট কাটার জন্য যাত্রীদের অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিজের নাম, সেলফোন নম্বর, ইমেইল ঠিকানা, জাতীয় পরিচয়পত্র/ জন্ম নিবন্ধন নম্বর ইত্যাদি তথ্য দিয়ে নিবন্ধন করতে হবে। তবে কোনো যাত্রী যদি ইতোমধ্যে বাংলাদেশ রেলওয়ের ই-টিকেট ওয়েবসাইটে নিবন্ধন করে থাকেন তাহলে তাকে আর দ্বিতীয়বার নিবন্ধন করতে হবে না। সেলফোন নম্বর ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ-ইন করলেই হবে।

সহজের কর্মকর্তারা আরো জানান, ‘রেল সেবা’ অ্যাপ ব্যবহার করে টিকিট কাটার জন্য যাত্রীকে তার পছন্দ অনুযায়ী যাত্রা শুরুর স্টেশন, গন্তব্য স্টেশন, পছন্দ অনুযায়ী ট্রেনের শ্রেণি ও যাত্রার তারিখ নির্বাচন করতে হবে। একইসঙ্গে ‘ট্রেন ডিটেইলস’ থেকে সহজেই ট্রেনের বিস্তারিত তথ্য দেখতে পারবে। তারপর যেকোনো ট্রেন থেকে পছন্দমতো কোচ এবং আসন নির্বাচন করে অনলাইন পেমেন্টের (ডেবিট/ ক্রেডিটকার্ড অথবা সেলফোনভিত্তিক আর্থিক সেবা বা এমএফএস) মাধ্যমে টিকেট কাটতে পারবেন।