বাংলাদেশের উন্নয়ন স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে পাশে থাকবে সৌদি

বাংলাদেশের উন্নয়ন স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে পাশে থাকবে সৌদি

সৌদি কোম্পানিগুলো বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছেন সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ইসা বিন ইউসুফ আল দুহাইলান।

তিনি বলেন, শান্তি, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, ভালো প্রণোদনা এবং নিয়ম-নীতির কারণে বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী সৌদি কোম্পানিগুলো।

বাংলাদেশের ভ্রাতৃপ্রতিম দেশ হিসেবে উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার দেশটির উন্নয়নে সৌদি আরব তার স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সব সময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে।

শুক্রবার সৌদি আরবের ৯২তম জাতীয় দিবস উপলক্ষে এক বার্তায় এসব কথা বলেন সৌদি রাষ্ট্রদূত।

তিনি বলেন, ‘এটি শক্তিশালী দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় নেয়ার পাশাপাশি ২০২৬ সালের মধ্যে উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় পৌঁছানোর লক্ষ্য পূরণে বাংলাদেশ সরকারকে সহায়তা করবে।’

ধর্মীয়, সাংস্কৃতিক, অর্থনৈতিক ও মানবিক সম্পর্কের মজবুত ভিত্তির ওপর সৌদি-বাংলাদেশ সম্পর্ক গভীর ও চমৎকার উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, ২০১৬ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সৌদি সফর ও বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদের সঙ্গে সাক্ষাত এবং উচ্চ পর্যায়ের অনেক বাংলাদেশির সফরের পর সৌদি-বাংলাদেশ সম্পর্ক আরও শক্তিশালী হয়েছে।

সৌদি আরব সব সময় বাংলাদেশের পাশে থেকে বিশেষ করে দুঃসময়ে সাহায্য করে বলেও জানান রাষ্ট্রদূত।

প্রায় ২৬ লাখ বাংলাদেশি সৌদি আরবের বিভিন্ন খাতে কাজ করছে, যা বিশ্বের বৃহত্তম শ্রম বাজার হিসেবে স্বীকৃত। প্রতি বছর সৌদি আরব থেকে বাংলাদেশি কর্মীরা ৩.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি রেমিট্যান্স পাঠান।